ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ ফাল্গুন ১৪২৭, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৩ রজব ১৪৪২

জাতীয়

মাস্ক শুধু করোনা নয়, ধূলাবালু-ঠাণ্ডা থেকেও রক্ষা করবে 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫২৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২১
মাস্ক শুধু করোনা নয়, ধূলাবালু-ঠাণ্ডা থেকেও রক্ষা করবে  কম্বল বিতরণ করছেন মতিয়া চৌধুরী। ছবি: বাংলানিউজ

শেরপুর: কৃষি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি সাবেক কৃষিমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মতিয়া চৌধুরী এমপি বলেছেন, ‘মাস্ক শুধু করোনা ভাইরাস (কোভিট-১৯) থেকেই রক্ষা করে না, ধূলাবালু থেকেও আমাদের রক্ষা করে। তাছাড়া মাস্ক ব্যবহার করলে ঠাণ্ডাজনিত রোগ হওয়ার সম্ভাবনাও কম থাকে।

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে শেরপুর জেলার নকলা উপজেলার উরফা ইউনিয়নের বারমাইসা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে দরিদ্রদের মধ্যে শীতের কম্বল বিরতণকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।  

তিনি বলেন- আওয়ামী লীগের সভাপতি আমাদের নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিয়মিত মাস্ক পড়েন। তিনি বক্তব্য দেওয়ার সময় দেশ ও জাতির সুরক্ষায় সবাইকে মাস্ক পড়ার তাগিদ দেন।

এময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জাহিদুর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলাম জিন্নাহ, সিনিয়র সহ-সভাপতি আম্বিয়া খাতুন, সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ আব্দুল খালেক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও পৌরসভার মেয়র হাফিজুর রহমান লিটন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, দপ্তর সম্পাদক খলিলুর রহমান, প্রচার প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক আব্দুর রশিদ সরকার, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ আলম মঞ্জু, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক বানেশ্বরদী ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসার সুপার শহিদুল ইসলাম, উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক রফিকুল ইসলাম সোহেল, যুগ্ম আহ্বায়ক এফ এম কামরুল আলম রঞ্জু ও সদস্য আইয়ুব খান, উরফা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আক্তারুজ্জামান, বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ নকলা উপজেলা শাখার অর্থবিষয়ক সম্পাদক ও গনপদ্দী উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মো. নাজমুল ইসলামসহ উপজেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতারা, এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও বিভিন্ন গণমাধ্যমের সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক খলিলুর রহমানের দেওয়া তথ্য মতে, মতিয়া চৌধুরী এ সফরে মঙ্গলবার ও বুধবার দুই দিনে নকলা উপজেলার এক হাজার ও নালিতাবাড়ি উপজেলার এক হাজার ২০০ হতদরিদ্রের মধ্যে কম্বল বিতরণ করবেন।  

তিনি জানান, মঙ্গলবার নকলা উপজেলায় সকাল ৯টায় উরফা ইউনিয়ন থেকে কম্বল বিতরণ শুরু করে আধা ঘণ্টা অন্তর পর্যায়ক্রমে নকলা, গনপদ্দী, বানেশ্বরদী, চন্দ্রকোনা, চরঅষ্টধর, পাঠাকাটা, টালকী ও গৌড়দ্বার ইউনিয়ন এবং সর্বশেষে নকলা পৌরসভার মুজিব শতবর্ষ মঞ্চ মাঠে কম্বল বিতরণ করা হবে। এদিন নালিতাবাড়ি উপজেলার রুপনারায়ণকুড়া ও মরিচপুরান ইউনিয়নে কম্বল বিতরণ করবেন।

বুধবার সকাল ৯টার সময় নালিতাবাড়ি উপজেলার রামচন্দ্রকুড়া ইউনিয়ন থেকে কম্বল বিতরণ শুরু করে আধা ঘণ্টা অন্তর পর্যায়ক্রমে কাকড়কান্দি, নালিতাবাড়ি, নয়াবিল, পোড়াগাঁও, নন্নী, রাজনগর, কলসপাড়, বাঘভেড় ইউনিয়ন, নালিতাবাড়ী পৌরসভার মুজিব শতবর্ষ মঞ্চ মাঠ, সবশেষে যোগানিয়া ইউনিয়নের কাপাসিয়া শহীদ স্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে কম্বল বিতরণ কর্মসূচি শেষ করে নকলায় ফিরবেন মতিয়া চৌধুরী।

পরে বুধবার বিকেল ৩টায় নকলা থেকে সড়ক পথে রাজধানী ঢাকার উদ্দেশে রওনা করবেন।  

বাংলাদেশ সময়: ১৬০৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২১
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa