ঢাকা, শুক্রবার, ১৩ ফাল্গুন ১৪২৭, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৪ রজব ১৪৪২

শিল্প

ফিউচার এক্সেসরিজের শুল্ক ফাঁকি আড়াই কোটি টাকা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৫০ ঘণ্টা, এপ্রিল ২০, ২০১৬
ফিউচার এক্সেসরিজের শুল্ক ফাঁকি আড়াই কোটি টাকা

ঢাকা: ফিউচার এক্সেসরিজ ইন্ডাস্ট্রি নামে একটি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে বন্ড লাইসেন্সের অপব্যহার করে কাঁচামাল খোলা বাজারে বিক্রির অভিযোগ উঠেছে।

নারায়ণগঞ্জের ফতুলায় অবস্থিত প্রতিষ্ঠানটি শুল্কমুক্ত সুবিধায় কাঁচামাল ডুপ্লেক্স বোর্ড ও আর্ট কার্ড আমদানি করে পণ্য তৈরি না করে তা খোলা বাজারে বিক্রি করে দিয়েছে।

এ অভিযোগে বুধবার (২০ এপ্রিল) বিকেলে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের কর্মকর্তারা বন্ডেড ওয়্যারহাউজে অভিযান চালিয়ে এর সত্যতা পেয়েছে।

শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের সহকারী পরিচালক জোবাইদা খানম বাংলানিউজকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, প্রতিষ্ঠানটি বন্ড সুবিধায় গত একবছরে কাঁচামাল আমদানি করে। কিন্তু পণ্য তৈরি না করে এসব কাঁচামাল খোলা বাজারে বিক্রি করে দিয়েছে।

বন্ডেড ওয়্যারহাউজের ভেতরের সামনের অংশে ডুপ্লেক্স বোর্ড ও আর্ট কার্ড সাজিয়ে রাখা হয়েছে। দেখে বোঝার উপায় নেই ভেতরে কাচাঁমাল ছাড়া অন্য কিছু রয়েছে।

হাউজের ভেতরের অংশে ডুপ্লেক্স বোর্ড ও আর্ট কার্ডের মধ্যে বিশাল অংশ জুড়ে অপর একটি কাঁচামাল ঢুকিয়ে রেখে প্রতারণার আশ্রয় নিয়েছেন।

তিনি আরো জানান, প্রতিষ্ঠানটি প্রায় এক হাজার টন কাঁচামাল খোলা বাজারে বিক্রি করে দিয়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। এর মধ্যে পণ্য মূল্য প্রায় ৫ কোটি টাকা।

শুল্ক ফাঁকি দেওয়া হয়েছে প্রায় আড়াই কোটি টাকা। প্রতিষ্ঠানটির মালিক মোস্তাক আহমেদ থেকে স্টেটমেন্ট নেওয়া হয়েছে। মামলা করা হবে বলেও জানান তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪৮ ঘণ্টা, এপ্রিল ২০, ২০১৬
আরইউ/জেডএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa