ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

বিনোদন

‘শ্রীলঙ্কান তামিল হয়ে জন্ম নিয়েই কি ভুল করেছি?’

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৫৭ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৬, ২০২০
‘শ্রীলঙ্কান তামিল হয়ে জন্ম নিয়েই কি ভুল করেছি?’ মুত্তিয়া মুরালিধরন ও তার চরিত্রে বিজয় সেতুপতি

শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটের কিংবদন্তি তারকা মুত্তিয়া মুরালিধরনের বায়োপিকে মূল চরিত্রে অভিনয় করতে চলেছেন তামিল অভিনেতা বিজয় সেতুপতি। কিন্তু মুরালিধরনকে ‘বিশ্বাসঘাতক’ ঘোষণা দিয়ে তাকে নিয়ে নির্মিত সিনেমায় অভিনয় না করার জন্য সেতুপতিকে লক্ষ্য করে রীতিমতো ব্যাপক আন্দোলন শুরু হয়েছে তামিলনাড়ুতে।

 

তামিলনাড়ুর রাজনীতির মহল থেকে শুরু করে চলচ্চিত্র অঙ্গনে চলছে উন্মাদনা। অভিনেতা বিজয় সেতুপতির ওপর ক্ষুব্ধ সবাই। রাজনীতিক, চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্ব ও ভক্তরা- সবার দাবি, সেতুপতি যেন এ সিনেমায় অভিনয় না করেন।  

কিন্তু মুত্তিয়া মুরালিধরনের মতো অন্যতম বিশ্বসেরা ক্রিকেটারকে নিয়ে এতো আপত্তি কেন তামিলনাড়ুতে? এর উত্তর রয়েছে শ্রীলঙ্কায় তামিল জাতির রক্তাক্ত ইতিহাসে। শ্রীলঙ্কায় তামিল টাইগারদের সঙ্গে সরকারি বাহিনির প্রায় ৩০ বছরের গৃহযুদ্ধের বেদনা এখনও তামিলদের স্মৃতিকে তাড়া করে। সেসময়ে অগণিত তামিল জনগোষ্ঠীর মানুষ মারা পড়ে শ্রীলঙ্কান বাহিনির হাতে। আর এই গণহত্যাকে অস্বীকার করে তৎকালীন সরকারের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন বিশ্বসেরা স্পিনার মুত্তিয়া মুরালিধরন। তখন থেকেই শ্রীলঙ্কান ও ভারতীয় তামিল জাতির কাছে ‘বিশ্বাসঘাতক’ বলে চিহ্নিত হয়ে পড়েন মুরালিধরন। কিন্তু কেন এবং কোন পরিস্থিতিতে তিনি সরকারের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন সেকথা জানেনি কেউ।  

হাজার হোক মুরালিধরন তো তামিল জনগোষ্ঠীরই একজন সদস্য। তামিল জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের একজন। তাই তামিলনাড়ুতেই উদ্যোগ হয় তার জীবননির্ভর সিনেমা বানানোর। আর নিজের আত্মকথা সবার সামনে উপস্থাপনের সুযোগটাও হাতছাড়া করেননি মুত্তিয়া। তিনিও সম্মতি দেন নির্মাতাদের।  

মুত্তিয়া মুরালিধরনের চরিত্রে অভিনেতা বিজয় সেতুপতির ফার্স্টলুক প্রকাশিত হওয়ার পরপরই দাবানলের মতো ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে সামাজিকমাধ্যমে। রাজনীতির নেতা থেকে চলচ্চিত্র বোদ্ধারাও সেতুপতির বিরুদ্ধে সুর চড়ান। টুইটারে হ্যাশট্যাগে ট্রেন্ডিং হয় ‘শেম অন বিজয় সেতুপতি’।

নির্মাতারা বলছেন এটা নিছক খেলানির্ভর সিনেমা। এখানে রাজনীতির কিছু নেই। কিন্তু সে কথায় চিড়ে ভিজছে না। বর্ষীয়ান তামিল চলচ্চিত্র নির্মাতা ভারতিরাজা বলেন, সেতুপতি যদি সিনেমাটি ছেড়ে দেয়, তাহলে তামিলরা তাকে কৃতজ্ঞতার সঙ্গে স্মরণ করবে। তামিল জনগোষ্ঠী কখনই বিশ্বাসঘাতকদের ক্ষমা করবে না।  

এরকম তুমুল বিরোধিতার মুখে শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) এক বিবৃতি দেন ক্রিকেটার মুত্তিয়া মুরালিধরন। সেখানে একজন শ্রীলঙ্কান তামিল হিসেবে তার সংগ্রাম করে এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণার কথা বলেন। তিনি কাদের কাছে কৃতজ্ঞ তা জানাতে চেয়েছিলেন। নিজের অবস্থান বোঝাতে চেয়েছিলেন। তবুও শুধুমাত্র ‘শ্রীলঙ্কান তামিল’ হয়ে জন্মগ্রহণ করেই কি তিনি অপরাধ করেছেন? তবে ঘটনাটিকে কেন্দ্র করে তামিলনাড়ুর রাজনীতি যেমন উত্তাল হয়ে উঠেছে, তাতে সিনেমাটির ভবিষ্যত অনেকটাই অনিশ্চিত হয়ে পড়লো।

আরও পড়ুন: মুরালিধরনের বায়োপিকের পোস্টার আসতেই রোষানলে সেতুপতি

বাংলাদেশ সময়: ২০৫৭ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৬, ২০২০
এমকেআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa