ঢাকা, শনিবার, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ১১ রবিউস সানি ১৪৪২

নির্বাচন ও ইসি

পাইকগাছায় আ’লীগের আনোয়ার চেয়ারম্যান নির্বাচিত

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৩৩৩ ঘণ্টা, অক্টোবর ২১, ২০২০
পাইকগাছায় আ’লীগের আনোয়ার চেয়ারম্যান নির্বাচিত আনোয়ার ইকবাল মন্টু

খুলনা: খুলনার পাইকগাছা উপজেলা পরিষদ উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আনোয়ার ইকবাল মন্টু চেয়ারম্যান পদে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) রাতে এ ফলাফল ঘোষণা করা হয়।

এর আগে সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভার ৭৯টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে অনুষ্ঠিত উপ-নির্বাচনে ২ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। নৌকা প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার ইকবাল মন্টু ও ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করেন উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক ডা. মো. আব্দুল মজিদ।

কোথাও কোনো সংঘাত বা সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেনি বলে নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হয়েছে বলে দাবি করেছেন উপজেলা প্রশাসন ও নির্বাচন কমিশন।

নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে প্রশাসন ও নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়। যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সার্বক্ষণিক নির্বাচনী কাজে নিয়োজিত ছিলেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ ও আনসার।

নির্বাচনে প্রাপ্ত ফলাফল অনুযায়ী ৭৪ হাজার ৬৮০ ভোট পেয়ে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আনোয়ার ইকবাল মন্টু বিএনপির ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী ডা. মো. আব্দুল মজিদকে বিশাল ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করে বেসরকারিভাবে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী মজিদ পেয়েছেন ২ হাজার ৯৫২ ভোট।

এদিকে বিকেল পৌনে ৫টায় নিজ বাসভবনে সংবাদ সম্মেলন করে বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ এনে নির্বাচনী ফলাফল প্রত্যাখান করেন বিএনপির প্রার্থী ডা. আব্দুল মজিদ। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ধানের শীষ প্রতীকের এ প্রার্থী নিজেই ভোট দেননি এবং কোনো কেন্দ্র পরিদর্শন করেননি বলে জানান।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা  (ইউএনও) এবিএম খালিদ হোসেন সিদ্দিকী বলেন, নির্বাচনে কোথাও কোনো সংঘাত কিংবা সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেনি। ভোটার উপস্থিতি একটু কম ছিল, আমি নিজেই বিভিন্ন কেন্দ্র পরিদর্শন করেছি। কোনো অভিযোগ পাইনি। সম্পূর্ণ অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হয়েছে।

বিজয়ী প্রার্থী আনোয়ার ইকবাল মন্টু বলেন, দলীয় সব পর্যায়ের নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে নৌকার পক্ষে কাজ করেছেন। আর সাধারণ মানুষ ভালোবেসে ভোট দিয়েছেন এজন্য বিশাল ব্যবধানের জয় হয়েছে। এ বিজয় শুধু আমার একার নয়, এ বিজয় জনগণের, এ বিজয় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের।

বাংলাদেশ সময়: ০৩২৯ ঘণ্টা, অক্টোবর ২১, ২০২০
এমআরএম/আরবি/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa