ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

ক্রিকেট

প্রধান নির্বাচক পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন মিসবাহ

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫১২ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৪, ২০২০
প্রধান নির্বাচক পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন মিসবাহ মিসবাহ-উল-হক/ছবি: সংগৃহীত

পাকিস্তান দলের প্রধান নির্বাচকের পদ থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন মিসবাহ-উল-হক। তবে প্রধান কোচের দায়িত্বে থাকছেন তিনি।

২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর থেকে একসঙ্গে দুই পদেই নিয়োগ পেয়েছিলেন সাবেক এই অধিনায়ক।

বুধবার (১৪ অক্টোবর) সংবাদমাধ্যমে প্রধান নির্বাচকের পদ ছাড়ার ঘোষণা দিয়ে মিসবাহ জানান, এই সিদ্ধান্তের পেছনে অন্য কারো হস্তক্ষেপ ছিল না। বরং এখন থেকে প্রধান কোচের দায়িত্বে জোর দিতে চান তিনি।

মিসবাহ বলেন, 'আমার প্যাশন মাঠ ঘিরে এবং (প্রধান নির্বাচক পদ থেকে দাঁড়ানোর) সিদ্ধান্ত নেওয়ার পেছনে এটাই প্রভাবিত করেছে। আমি খেলোয়াড়দের সঙ্গে কাজ করতে পছন্দ করি। '

মিসবাহ দায়িত্ব নেওয়ার পর চলতি বছরের জানুয়ারিতে ঘরের মাঠে বাংলাদেশের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে পাকিস্তান জয় পেয়েছে ২-০ ব্যবধানে। এর আগে এক ম্যাচ মাঠে গড়ানোর পর করোনা মহামারির কারণে টেস্ট সিরিজ স্থগিত হয়ে যায়। একমাত্র টেস্টটিতে জয় পেয়েছিল পাকিস্তান।

এরপর ইংল্যান্ড সফরে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলে পাকিস্তান। যেখানে বৃষ্টি বিঘ্নিত টেস্ট সিরিজে ইংলিশদের কাছে ১-০ ব্যবধানে হারের পর টি-টোয়েন্টি সিরিজে ১-১ ব্যবধানে ড্র করে পাকিস্তান।

বেশ কিছুদিন থেকেই প্রধান নির্বাচক হিসেবে মিসবাহর ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে আসছে। দল বাছাইয়ে তার একচ্ছত্র আধিপত্যের সমালোচনাও হয়েছে বিস্তর। এবার সেই সমালোচনার ইতি টেনে দিলেন তিনি নিজেই।

জিম্বাবুয়ে সিরিজকে সামনে রেখে গত সপ্তাহে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান ও চেয়ারম্যান এহসান মানির সঙ্গে বৈঠকে বসেন মিসবাহ। সেই বৈঠকে গত এক বছরে তার পারফরম্যান্স ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা করা হয় বলে জানিয়েছে দেশটির একাধিক সংবাদমাধ্যম। সেখানেই তাকে জানিয়ে দেওয়া হয়, পিসিবির নতুন নীতিমালা অনুযায়ী বোর্ডের সঙ্গে যুক্ত কেউ একইসঙ্গে দুই ভূমিকায় দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না।  

পাকিস্তানের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী, ঘরোয়া ক্রিকেট সংক্রান্ত বিষয় সরকারের কর্তাব্যক্তিদের কাছে তুলে ধরার কারণে মিসবাহর ওপর ক্ষুব্ধ পিসিবি চেয়ারম্যান মানি।  

কিছুদিন আগে টেস্ট অধিনায়িক আজহার আলীকে সঙ্গে নিয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ও সাবেক বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ইমরান খানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন মিসবাহ। এই বিষয়টাও মানতে পারেননি ওয়াসিম খান ও এহসান মানি। সেই সাক্ষাতে ঘরোয়া ক্রিকেটের নানা সমস্যার কথা ইমরান খানের কাছে তুলে ধরেছিলেন মিসবাহ।

২০১৯ বিশ্বকাপে ব্যর্থতার পর মিকি আর্থারকে সরিয়ে মিসবাহকে প্রধান কোচের পদে বসায় পিসিবি। সেই সঙ্গে প্রধান নির্বাচকের দায়িত্বও তার কাঁধেই তুলে দেওয়া হয়। দলের বোলিং কোচের দায়িত্ব দেওয়া হয় আরেক সাবেক অধিনায়ক ও কিংবদন্তি পেসার ওয়াকার ইউনিসকে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫১২ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৪, ২০২০
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa